রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৮:০৪ অপরাহ্ন

বানারীপাড়ায় স্বামীর চারিত্রিক অবক্ষয়ে ভাঙনের পথে তিন দশকের সুখের সংসার

অনলাইন ডেস্ক / ১৪ শেয়ার
প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২১

বানারীপাড়া প্রতিনিধিঃ
বানারীপাড়ায় স্বামীর চারিত্রিক অবক্ষয়ের কারণে প্রায় তিন দশকের মাথায় ভাঙতে যাচ্ছে খালেদার সুখের সংসার। দুই মেয়ে নিয়ে অসহায় অবস্থায় দিনাতিপাত করছেন গৃহবধূ খালেদা বেগম। অসহায় খালেদা বেগম জানান প্রায় ৩০ বছর আগে উপজেলার চাখার ইউনিয়নের আশুরাইল গ্রামের ৭ নং ওয়ার্ডের মৃত জিন্নাত আলী হাওলাদারের ছেলে জয়নাল হাওলাদারের সাথে পারিবারিক ভাবে তাদের বিবাহ হয়। দাম্পত্য জীবন তাদের দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে। যার একজনের বয়স ২৬ অপর জনের বয়স প্রায় ২৩ বছর। সরেজমিনে গেলে জয়নাল হাওলাদার এর মেয়েরা অভিযোগ করে বলেন তার বাবা প্রতিবেশী সুলতানের নাতনি স্কুল পড়ুয়া নাবালিকা মিম নামের এক কিশোরীকে বিবাহ করতে চাইছে। এতে বাধ সধে জয়নালরে স্ত্রী ও মেয়েরা। একারনে জয়নাল হাওলাদার তার স্ত্রী ও মেয়েদের এক প্রকার অস্বীকার করছেন এবং খালেদা বেগমকে তালাক দিতে চাইছে। এছাড়াও জয়নাল হাওলাদার তার স্ত্রী ও মেয়েদের শারীরিক ও মানষিক ভাবে নির্যাতন করছে বলে জানান খালেদা বেগম। জয়নাল হাওলাদার এর মেয়ে মনি জানান সম্প্রতি তার বাবা দ্বিতীয় বিবাহ করার জন্য আশুরাইলের গ্রামের বাড়িতে তালা দিয়ে ঢাকায় চলে যায়। এক পর্যায়ে বাসার তালা ভেঙেই তারা বাসার ভেতর প্রবেশ করেন। বর্তমানে তারা ওই বাসাতেই বসবাস করছেন। এ অবস্থায় এ পরিবারটি অসহায় ভাবে দিনাতিপাত করছে। জানাগেছে জয়নাল হাওলাদার মীমকে বিবাহ করার জন্য একটি ভুয়া জন্ম সনদ তৈরি করেছেন। এ বিষয়ে প্রতিবেশী মিন্টু মোল্লার মেয়ে মিমদের বাড়িতে কাউকে না পাওয়ায় তাদের বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। এ বিষয়ে জয়নাল হাওলাদারের সাথে মুঠো ফোনে কথা হলে তিনি মিমকে বিয়ে কারার বিষয়টি অস্বীকার করেন। ইউপি চেয়াম্যান সৈয়দ মজিবুল হক টুকু জানান, জয়নাল হাওলাদারকে বাড়িতে আসার জন্য বলা হয়েছে কিন্তু তিনি আসছেননা। তিনি আরও বলেন জয়নালের স্ত্রী ও কণ্যাদের পরিষদ থেকে সকল ধরনের সহযোগীতা করা হবে।

Facebook Comments Box


এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
Developed by: Agragamihost.Com