রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১১:৫৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা তালতলীতে নবনির্বাচিত ও পরাজিত মেম্বার সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ৩০ শিক্ষক হত্যা ও জুতার মালা গলায় পরিয়ে নির্যাতনের প্রতিবাদে তালতলীতে শিক্ষকদের কালোব্যাজ ধারণ ও মানববন্ধন মোংলার মিঠাখালী ইউনিয়নের মৎস ঘের থেকে গ্যাসের সন্ধান মাদক ও মোবাই আসক্তি প্রতিরোধে বেতাগী এনসিটিএফ এর ফুটবল টুর্ণামেন্টের  বরগুনায় শিক্ষকদের কালোব্যাজ ধারণ ও মানববন্ধন বানারীপাড়ায় জমি নিয়ে বিরোধে আ’লীগ নেতার গুলি বর্ষন উভয় পক্ষের ৯জন হাসপাতালে ভর্তি মোংলায় ১২’তম বর্ষীয় সার্বজনীন শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উদযাপন সাবেক পৌরসভার চেয়ারম্যান আবুল কাশেমের মৃত্যুতে  পৌরসভার আলোচনা ও দোয়া গোমস্তাপুরে  আমের বাজার জমজমাট প্রতারনার মাধ্যমে ৪০ লক্ষ টাকা ও কুরিয়ারের মালামাল নিয়ে চরমোনাইর মুরিদ উধাও

মোংলায় কিশোর নির্যাতন ঘটনায় মামলা দায়ের করা হলেও প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াছেন আসামী

অনলাইন ডেস্ক / ৬৫ শেয়ার
প্রকাশিত : শুক্রবার, ২০ মে, ২০২২

অতনু চৌধুরী (রাজু) বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ
মোংলায় গাছের পাতা পাড়ার অপরাধে ১৬ বছরের এক কিশোরকে নির্যাতন চালিয়ে অজ্ঞান করার ঘটনায় মামলা হলেও প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছেন অভিযুক্ত আসামী মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের নিরাপত্তা বিভাগের হাবিলদার মোঃ বেল্লাল হোসেন। নির্যাতনের ঘটনায় বৃহস্পতিবার (১৯ মে) রাতে থানায় মামলা দায়ের করেন নির্যাতনের শিকার ওই কিশোর মোঃ গোলাম রাব্বী বাবুর (১৬) পিতা মোঃ মন্টু সরদার।
এদিকে এ ঘটনায় নিরাপত্তা হাবিলদার মোঃ বেল্লাল হোসেনের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেওয়া হবেনা ২৪ ঘন্টার মধ্যে তার কারণ দর্শানোর জবাব চেয়ে তাকে শোকজ করা হয়েছে। মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের উর্ধ্বতন নিরাপত্তা কর্মকর্তা মোঃ আইয়ুব আলী বলেন, শোকজের জবাব সন্তোষজনক না হলে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এছাড়া এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে আলাদা তদন্তও করা হচ্ছে। নিরাপত্তা হাবিলদার মোঃ বেল্লাল হোসেন মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের নিরাপত্তা বিভাগে ১৯৯৪ সালে যোগদান করেন। মোংলা থানায় তার বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলার বরাত দিয়ে ওসি মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম বলেন, মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের নিরাপত্তা বিভাগের নিরাপত্তা হাবিলদার মোঃ বেল্লাল হোসেন গত বুধবার (১৮ মে) সকালে ছাড়াবাড়ী এলাকার বাসিন্দা ঠেলাগাড়ি চালক মোঃ মন্টু সরদারের কিশোর ছেলে বাবুকে ষ্টীলের লাঠি ও মাদার/কাউফলা কচা দিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করেন। বেদম প্রহারে কিশোরটি সেখানে সজ্ঞাহীন হয়ে পড়লে খবর পেয়ে পরিবার উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে খুলনায় পাঠানো হয়। এদিকে এ ঘটনায় নিরাপত্তা হাবিলদার মোঃ বেল্লাল হোসেনের নামে মামলা হলেও এখনও তাকে গ্রেফতার করেনি পুলিশ। থানা থেকে মাত্র ২০০ গজ দূরে মোঃ বেল্লাল হোসেন অবস্থান করে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও রহস্যজনক কারণে গ্রেফতার হচ্ছেনা সে। এনিয়ে ভুক্তভোগী পরিবার ও ওই এলাকার বাসিন্দারা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। ভুক্তভোগী পরিবারের অভিযোগ আসামি বেল্লাল হোসেন মামলা তুলে নিতে নানা হুমকি দিচ্ছেন তাদেরকে। এ ব্যাপারে মোংলা থানার ওসি মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম বলেন, আসামি নিরাপত্তা হাবিলদার মোঃ বেল্লাল হোসেন প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ানোর বিষয়টি আমার জানা নাই। তারপরও তাকে গ্রেফতারে আমরা চেষ্টা চালাচ্ছি।
Facebook Comments Box


এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
Developed by: Agragamihost.Com